Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সাধারণ তথ্য

প্রসত্মাবিত প্রকল্পের উদ্দেশ্য ও       প্রধান উদ্দেশ্যঃ- খামারীদের সাথে টেকসই গবাদিপ্রাণির টিকাপ্রদান কৃমি নাশক

         যৌক্তিকতা                      ও প্রযুক্তি হস্থামত্মর,ইত্যাদি বিষয়ে উদ্বদ্ধকরনের মাধ্যমে প্রাণিসম্পদের  উৎপাদন     

                                           বৃদ্ধি ও উৎপাদনশীলতা অব্যাহত রাখা।

                                           সাধারণ উদ্দেশ্যঃ-

                                  ০  খামারীদের নতহন নতহন প্রযুক্তি,ইত্যাদি বিষয়ে উদ্বদ্ধকরণ

                                   ০  সমম্বিত খামারীদের প্রযুক্তি গ্রহণ,টিকাবীজ ও কিটনাশক ঔষধ ব্যবহার

                                                   এর মাধ্যমে উৎপাদন বৃদ্ধি করা।

                                                ০ গ্রাম ভিত্তিক প্রগতিশীল খামারীদের কৃমি নাশক সেবন ও 

                                                   ভ্যাকসিনেটর তৈরী করা।

                                             পটোভূমি যৌক্তিকতাঃ-

                                                   ভাঙ্গুড়া উপজেলা চলনবিল অধ্যুষিত কৃষিতে সমৃুদ্ধ একটি এলাকা 

                                                   এখানে কৃষকেরা ভাল উন্নত জাতে গবাদি পশু পালন করে থাকে,কোন 

                                                   কোন এলাকা খুবই ঝুকি পূর্ণ তাই  খামারীদের মধ্যে প্রতিষেধক  টিকা

                                                   ও কৃমি নাশক ঔষধ বিতরনের  বিশেষ প্রয়োজন রহিয়াছে।

                                                  

                                                   ভাঙ্গুড়া উপজেলার প্রায় ৮০% মানুষ কৃষি নির্ভর। প্রায় ৭০% কৃষকের 

                                                   বাড়ীতে গবাদি পশু মাধ্যমে জীবিকা নির্ভরশীল অত্র উপজেলায় 

                                                   প্রায় ৪৮২০৫,মহিষ-১০৫টি,ছাগল-১০৫০২,ভেড়া- ১৯৬০

 

 ৫। প্রকল্প এলাকা                                     ভাঙ্গুড়া উপজেলা সকল গ্রাম

 

৬।  (ক) প্রকল্পের ধারনাগত কাঠামো                (ক) বাংলাদেশ কৃষি প্রধান দেশ। দীর্ঘস্থায়ী বন্যা,খরার জন্য

                                                   অঞ্চলের মানুষ আজ চরম বিপন্ন এবং এই প্রভাবের

                                                   মোকাবেলায় বাংলাদেশ সরকার প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর উন্নয়নে 

                                                   খামারীদের টেকসই প্রযুক্তি সম্প্রসারণে দেশের বৃহত্তর ও দক্ষ

                                                   সরকারী প্রতিষ্ঠান। গবাদিপ্রাণির জাত উন্নয়ন ও সম্প্রসারণ 

                                                   অধিদপ্তর বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে গবাদি প্রাণির কৃত্রিম

                                                   প্রজননের মাধ্যমে জাত উন্নয়ন করেছে। এর মাধ্যমে দুধের

                                                   উৎপাদন বৃদ্ধি গরু মোটাতাজাকরণ বিভিন্ন জাতের ঘাষ

                                                   উৎপাদন ইত্যাদি উন্নয়ন মুখি কাজ করে যাচ্ছে। এই সমসত্ম

                                                   কাজ করতে গেলে নিয়মিত ভাবে টিকা প্রদান ও কৃমি নাশক

                                                   প্রয়োগ  অত্যামত্ম জরুরী এ ছাড়া খামারীদের প্রশিক্ষণ প্রয়োজন

৭। প্রসত্মাবিত প্রকল্পের আওতায়গুহীতব্য কার্যক্রম সমুহ (অপঃরারঃরবং)এবং কার্যক্রমসমুহের সম্ভাব্য ফলাফল 

     (ড়ঁঃঢ়ঁঃ)প্রভাব(০ঁঃপ০সব)

কার্যক্রম                                                                         ফলাফল ও প্রভাব

১। প্রযুক্তি সম্প্রসারণ ও অভিযোজন                  দুধের উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে, মাংস উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে উন্নত জাতের ষাড় 

                                                         বাছুর ও বকনা বাছুর উৎপাদন হবে  গবাদিপশুর রোগ ব্যাধি কম হবে  গরু                              

০গবাদি পশুর টিকা প্রাদান                              মৃত্যু হার কম হবে। বায়োগ্যাসের মাধ্যমে জালানী খরচ কম হবে যৌব সার 

০নিয়মিত কৃমি নাশক প্রয়োগ                           পাওয়া যাবে তাহাতে মাটির উরবরতা বৃদ্ধি পাবে ।

০কৃত্রিম প্রজননে উৎসাহিত করা

০উন্নত জাতের ঘাষের আবাদ

০ বায়োগ্যাস প­vন্ট স্থাপনে উৎসাহিত করা

কর্মসূচী ব্যবস্থাপনাঃ-

 

কর্মসূচী সূষ্ঠভাবে বাসত্মবায়নের জন্য কর্মসূচী পরিচালক এর সভাপতিত্বে নিম্নোক্তভাবে একটি কর্মসূচী স্টিয়ারিং কমিটি থাকবে।

নং

পবদী

প্রতিষ্ঠানের নাম

কমিটিতে অবস্থান

১।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

উপজেলা প্রশাসন,ভাঙ্গুড়া,পাবনা

সভাপতি

২।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান

উপজেলা পরিষদ,ভাঙ্গুড়া,পাবনা

সদস্য

৩।

উপজেলা  প্রাণিসম্পদ অফিসার

উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর,ভাঙ্গুড়া,পাবনা

সদস্য সচিব

 

কর্মসূচী স্টিয়ারিং কমিটির দায়িত্বঃ

০ কর্মসূচীর কার্যক্রমের মনিটরিং ও অনুমোদন

০ কর্মসূচীর সার্বিক বাসত্মবায়নের পরামর্শ প্রদা ও সমন্বয় সাধন।

০কর্মসূচীর আর্থিক ব্যবস্থাপনা এবং সঠিক সময়ে কর্ম সম্পাদনে উদ্ভত সমস্যা সমাধানের দিক নির্দেশনা প্রদান

০ কমিটির সভা কমপক্ষে একবার অনুষ্ঠিত হবে।

ক্রমিক নং

টিকা বীজের নাম

প্রতি ভায়েলে টিকার পরিমান

প্রতি মাত্রা মূল্য

মোট মূল্য

১।

তড়কা

১০০মাত্রা

০.৫০ পয়সা

৫০/=

প্রকল্পে বিভিন্ন খাতে ভাংতি বিবরণীঃ-

মোট ইউনিয়নের সংখ্যা= ৬ টি

প্রতি ইউনিয়নে দশটি করে গ্রাম

প্রতি গ্রামের গবাদি পশুর সম্ভাব্য সংখ্যা ৬০২

দশটি  গ্রামে তড়কার টিকা প্রয়োজন                            ৬০২০ মাত্রা   ০.৫০=৩০১০/= ৬=১৮০৬০/=

প্রতি একশতটি  গরুর টিকা প্রদান করতে সেছাসেবি

দুই প্রয়োজন    প্রতি জনকে পারিশ্রমীক                         ৩০০/=   ১২২= ১৮৬০০/= ৬=১,১১,৬০০/=

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার প্রতি ইউনিয়নে দুইটি পরিদর্শন           ১০০০/=  ২=২০০০/=  ৬=১২০০০/=

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার প্রতি ইউনিয়নে দুইটি পরিদর্শন     ১০০০/=  ২=২০০০/=   ৬=১২০০০/=

                                                                            ----------------------------------

                                                                            মোটঃ-                   ১,৫৩,৬৬০/=

 

                                                                          বাসত্মবায়নকারী দপ্তর প্রধানের স্বাক্ষর ও সীল

১ টি গ্রামে টিকার প্রদান-              ৬০২ ঢ .৫০=৩০১.০০/=

 

১ টি গ্রামে স্বেচ্ছাসেবী প্রয়োজন ৩০০ ঢ ১২=৩,৬০০/=